Beta

র‍্যাংকিংয়ে ছয়ে ওঠার দারুণ সুযোগ বাংলাদেশের

১২ অক্টোবর ২০১৭, ২০:২৫ | আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০১৭, ২০:৩১

স্পোর্টস ডেস্ক

বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ন্যূনতম প্রতিরোধ গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। তবে এবার প্রোটিয়াদের জন্য ওয়ানডের যুদ্ধে নামবে টিম মাশরাফি। ওয়ানডে বলেই সিরিজটা নিয়ে দারুণ আশাবাদী টাইগার সমর্থকরা। এই সিরিজে ভালো ফল করতে পারলে র‍্যাংকিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে ছয় নম্বরে উঠে যাবে মাশরাফির দল। এটা করতে হলে, আবশ্যিক শর্ত হিসেবে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজটা জিততে হবে টাইগারদের। অপরদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাকিস্তানের হারটাও কামনা করতে হবে বাংলাদেশকে।

বাংলাদেশ যখন প্রোটিয়ার মুখোমুখি হবে ঠিক একই সময়ে শ্রীলঙ্কাকে আতিথেয়তা দেবে পাকিস্তান। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জিতলেই সরাসরিভাবে র‍্যাংকিংয়ের ছয় নম্বরে উঠে যাবে লাল-সবুজের দল। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট হবে ৯৭। পাকিস্তানকে টপকে ছয়ে উঠে আসবেন সাকিব-তামিমরা। র‍্যাংকিংয়ে ষষ্ঠ স্থান পুনরুদ্ধারের একটা সুযোগ অবশ্য পাবে পাকিস্তান। সে ক্ষেত্রে শ্রীলঙ্কাকে ৪-১ ব্যবধানে ওয়ানডে হারাতে হবে সরফরাজের দলকে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ সিরিজটা দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কিছুদিন আগে অস্ট্রেলিয়াকে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ হারিয়ে ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানে উঠেছে ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে পুরোনো সাম্রাজ্য ফিরিয়ে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে হোয়াইটওয়াশ করতে হবে প্রোটিয়াদের। সেটা করতে পারলে ১২০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানে ফিরবে দু প্লেসিসের দল। ভারতও অবশ্য র‍্যাংকিংয়ের শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রাখার সুযোগ পাবে। সে ক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজটা জিততে হবে কোহলি-ধোনিদের।

নিজেদের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানো সহজ হবে না বাংলাদেশের জন্য। সিরিজের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচেও দাপট দেখিয়েছেন প্রোটিয়া বোলাররা। এমনকি দেশটির তরুণ ব্যাটসম্যানরাও পরীক্ষা নিয়েছেন মাশরাফি-সাকিবদের। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত আবার র‍্যাংকিংয়ের ছয়ে উঠতে পারে কি না বাংলাদেশ। এ বছর চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে আয়ারল্যান্ড সিরিজে প্রথমবারের মতো র‍্যাংকিংয়ের ছয় নম্বরে ওঠে টিম মাশরাফি।   

Advertisement
2.8316888809204