Beta

সৌদি আরবে নিরাপদ সড়ক চাই-এর উদ্যোগে গুণীজন সংবর্ধনা

২৯ জানুয়ারি ২০১৮, ১৬:২৯

মদিনা প্রতিনিধি
নিরাপদ সড়ক চাই সৌদি আরব শাখার উদ্যোগে মদিনায় গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হয়েছে। ছবি : এনটিভি

নিরাপদ সড়ক চাই সৌদি আরব শাখার উদ্যোগে মদিনায় গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হয়েছে। গত শুক্রবার সৌদি আরব সময় রাত ৯টায় মদিনার একটি হোটেলে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত করেন মদিনা সাংবাদিক পরিষদের অর্থ সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন সুমন। পরে সম্মিলিত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশিত হয়। 

অনুষ্ঠানে সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন নিরাপদ সড়ক চাই সৌদি আরবের আহ্বায়ক ও মদিনা সাংবাদিক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী রাশেদ। সঞ্চালনা করেন কবি ও সাংবাদিক ফ ই ম ফরহাদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব (প্রেস) মো. ফখরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও মদিনা কমউনিটি নেতা, নিরাপদ সড়ক চাই সৌদি আরবের উপদেষ্টা কাজী শাহআলম। 

বিশেষ অতিথি ছিলেন মদিনা সাংবাদিক পরিষদের সভাপতি মুছা আবদুল জলিল, মদিনা তাইয়্যেবা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রো বায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. কাজী মঞ্জুরুল হক। 

প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেদ্দার রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সভাপতি সাংবাদিক এম ওয়াই আলাউদ্দিন। 

অনুষ্ঠানে সৌদি আরবের বিভিন্ন শহরে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি গুণীজনদের শিক্ষা, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, উন্নয়ন ও বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে স্বাচ্ছন্দ্য অংশগ্রহণের স্বীকৃতিস্বরূপ বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়। 

সম্মাননা পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন—মদিনা সাংবাদিক পরিষদের সভাপতি মুছা আবদুল জলিল, সিনিয়র সহসভাপতি ফ ই ম ফরহাদ, সহসভাপতি ডেইলি মাই নিউজ ও প্রবাসীকাল ডটকমের সম্পাদক যাকারিয়্যা মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী রাশেদ, বিশিষ্ট প্রবাসী জহিরুল হুদা আলমগীর, রবিউল হোসেন চৌধুরী, সাংবাদিক মোহাম্মদ আতিক উল্লাহ, সাংবাদিক দেলোয়ার হোসেন সুমন, হাফিজ আহমদ সাগর, ইকবাল সরকার, মামুনুর রশিদ তালুকদার, সাংবাদিক মোহাম্মদ শামীম, জসিম উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা মো. সেলিম, ঈসমাইল খান, জাকারিয়া সোহাগ, জানে আলম জনি, মো. নাসিরুদ্দিন, আমির উদ্দিন চৌধুরী, নুরুল হুদা শাহানুর, আলাউদ্দিন আহমেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘মদিনার বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে নিজেকে পরিচিত করার ইচ্ছে ছিল অনেক দিনের। এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সে আশা সম্পূর্ণরূপে পূরণ হয়েছে। সঙ্গে ছিল অত্র এলাকার বিশিষ্ট গুণীজনদের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার বিশেষ সুযোগ। অন্য কোনো সাধারণ অনুষ্ঠানে এলে হয়তো এ সুযোগ পাওয়া যেত না।’

ফখরুল ইসলাম তাঁর পক্ষ থেকে সম্মাননা পাওয়া গুণীজনদের বিশেষ ধন্যবাদ জানান। বক্তব্যে প্রধান অতিথি দূতাবাসের কার্যক্রমের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। সেইসঙ্গে গুণীজন সংবর্ধনার আয়োজকদেরও ধন্যবাদ জানান।

গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিপুলসংখ্যক মদিনা, ইয়ানবু ও তাবুকের প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement