Beta

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত

০৭ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:০২ | আপডেট: ০৭ জানুয়ারি ২০১৮, ২০:৩৮

সৌদি আরবের জিজান প্রদেশের শামতা এলাকায় উল্টে আছে বাংলাদেশি শ্রমিকদের বহনকারী গাড়ি। ছবি : এনটিভি

সৌদি আরবের জিজান প্রদেশের শামতা এলাকায় গতকাল শনিবার সড়ক দুর্ঘটনায় দশ বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরো আটজন। 

নিহত বাংলাদেশিরা জিজানের আল ফাহাদ কোম্পানির পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে কাজ করতেন। 

সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। বার্তা সংস্থা বাসস এই তথ্য জানিয়েছে। 
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জেদ্দা থেকে ৮০০ কিলোমিটার দূরে ইয়েমেন সীমান্তের কাছে অবস্থিত জিজান প্রদেশে স্থানীয় সময় শনিবার সকাল ৭টার দিকে একটি ট্রাকে করে ২০ জন বাংলাদেশি শ্রমিক কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে পেছন থেকে আরেকটি গাড়ি ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, দুর্ঘটনার পর পরই ঘটনাস্থলে আটজন মারা যান। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পর আরো দুজন বাংলাদেশি মারা যান।

তবে আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার সকালে আল ফাহাদ কোম্পানির পিকআপে করে ২৭ জন কাজে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। জিজান থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে শামতা এলাকায় অপরদিক থেকে আসা আরেকটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই পিকআপকে ধাক্কা দেয়। এতে পরিচ্ছন্নকর্মীদের বহন করা পিকআপ উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলে আটজন মারা যান। আহতদের হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরো দুজনের মৃত্যু হয়। আহতদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

নিহতদের মধ্যে ছয়জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। এঁরা হলেন নরসিংদীর ইদন ও জেলার করিমপুরের বাউশালী গ্রামের আমীর হুসাইন, সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার বালুকোল গ্রামের মো. দুলাল মণ্ডল, টাঙ্গাইলের সাইফুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের মতিউর রহমান ও কিশোরগঞ্জের জসিম। নিহতদের মরদেহ জিজানের একটি হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের শ্রম কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে লোক পাঠিয়েছি। এ ব্যাপারে সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছি।’
 

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement