Beta

বাজে পোশাকের কারণে অভিনয় ছেড়েছিলাম : মুনমুন

২৩ মে ২০১৫, ১১:৫৩ | আপডেট: ২৩ মে ২০১৫, ১১:৫৫

ভালো ছবিতে অভিনয় করতে চান চিত্রনায়িকা মুনমুন। ছবি : সংগৃহীত

দীর্ঘ বিরতির পর চলচ্চিত্রে ফিরলেন সাড়া-জাগানো নায়িকা মুনমুন। ঢাকাই ছবিতে একসময়ে ‘বিশেষ’ কিছু ছবির জন্য পরিচিত হয়ে উঠেছিলেন তিনি। এর পর নিজে থেকেই সরে গিয়েছিলেন অভিনয়জগৎ থেকে। একান্ত আলাপে এনটিভি অনলাইনকে জানালেন, চলচ্চিত্রের অবস্থার অবনতির জন্যই চলে গিয়েছিলেন আড়ালে।

নায়িকা মুনমুন বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই ভালো একটা গল্পের জন্য অপেক্ষায় ছিলাম। ড্যানি ভাইকে ধন্যবাদ, এমন একটা কাজের জন্যই অপেক্ষায় ছিলাম। এর আগে ছবিতে কাজ করতে করতে যখন দেখলাম, বাংলা ছবি অশ্লীলতায় ভরে গেছে, তখনই ছবি থেকে বিদায় নিয়েছিলাম। কিন্তু এক মুহূর্ত স্বস্তিতে থাকতে পারিনি। কারণ, আমি অভিনয়শিল্পী। এটা আমার নেশা। গল্পের দুর্বলতা আর বাজে পোশাকের কারণে অভিনয় ছেড়েছিলাম। ভালো গল্পের জন্য এতদিন অপেক্ষায় ছিলাম, এখন থেকে ভালো গল্প পেলে নিয়মিত কাজ করতে চাই। আমি ভালো একটি ছবি দিয়ে আমার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে চেয়েছি। আমার চাওয়া পূরণ করেছেন ড্যানি ভাই। সরকারি অনুদানের একটি ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্র ফিরে আসতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। এখন থেকে ভালো ছবির অফার পেলে আমি নিয়মিত অভিনয় করব।’

গত ১৯ মে থেকে শুরু হয়েছে ড্যানি সিডাক পরিচালিত সরকারি অনুদানে নির্মীয়মাণ ‘কাঁসার থালায় রূপালী চাঁদ’ ছবির কাজ। এতে গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন মুনমুন।

ছবিতে নিজের চরিত্র নিয়ে মুনমুন বললেন, ‘আমি গ্রামের সাধারণ মেয়ে, ছোটবেলা থেকেই আমার নায়িকা হওয়ার ইচ্ছা থাকে। একসময় গ্রামের কয়েকজন আমাকে শহরে নিয়ে আসে নায়িকা বানানোর জন্য। যে চক্রটি আমাকে নায়িকা বানানোর জন্য শহরে নিয়ে আসে, তারা সবাই রাজাকার। এই ছবি মুক্তিযুদ্ধের পরবর্তী সময়ের। এ ছবিতে কাজ করতে খুব ভালো লাগছে। আমার বিশ্বাস, দর্শকও ভালোভাবে গ্রহণ করবে।’

চলচ্চিত্রে ফিরে আসা প্রসঙ্গে মুনমুন বলেন, ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের অবস্থা এমন হয়েছিল যে ছেড়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না। আমরা অভিনয় করতে এসেছিলাম চলচ্চিত্রে। কিন্তু তখনকার সময়ে যে ধরনের গল্প নিয়ে ছবি নির্মাণ হতো আর যে ধরনের পোশাক পরতে হতো, শিল্পী হিসেবে মন খারাপ হয়ে যেত। কিন্তু আমাদের কিছুই করার ছিল না। কারণ, নায়িকা মৌসুমী, নায়িকা পপি, এমনকি নায়িকা পূর্ণিমা যে ধরনের পোশাক পরে অভিনয় করেছেন, তাতে নতুন শিল্পী হিসেবে আমাদের কিছুই বলার ছিল না। একসময় চলচ্চিত্র থেকে বিদায় নিলাম, আর ভালো গল্পের জন্য অপেক্ষা করতে শুরু করলাম। এখন ছবির অবস্থা অনেক ভালো মনে হচ্ছে। আবারো ভালো গল্প নিয়ে অনেকে কাজ করছে। আশায় বুক বাঁধছি, মনে হচ্ছে এখন ভালো কাজের সঙ্গে নিজেকে জড়াতে পারব।’

মুনমুন প্রসঙ্গে পরিচালক ড্যানি সিডাক বলেন, ‘আমার ছবিতে অভিনয় জানা শিল্পীর প্রয়োজন ছিল। সে প্রয়োজন থেকেই মুনমুনকে নিয়ে আসা। অভিনেত্রী হিসেবে মুনমুন অনেক ভালো। আমার বিশ্বাস, এই ছবির মাধ্যমে ওর চলচ্চিত্রে ফেরাটা দর্শক মনে-প্রাণে গ্রহণ করবেন।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement