Beta

অস্কার মঞ্চে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে কথা বললেন ডিক্যাপ্রিও

২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, ১২:৩০ | আপডেট: ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, ১৪:০০

সেরা অভিনেতার অস্কার পাওয়ার পর মঞ্চে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও। ছবি : রয়টার্স

ছয়বার অস্কার মনোনয়ন পেয়েছেন। এবার জিতলেন প্রথমবারের মতো। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এখন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিওর জয়গান গাইছেন তাঁর ভক্তরা। 

‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছবির জন্য সেরা অভিনেতার অস্কার পাওয়া ডিক্যাপ্রিও যখন অস্কার মঞ্চে পুরস্কার নিতে উঠলেন, ডলবি থিয়েটারের হলঘরজুড়ে তখন হর্ষধ্বনি। সেটা থামতে কিছুটা সময় লাগল। সে পর্যন্ত হাসিমুখে অপেক্ষা করলেন লিওনার্দো। 

এর পর সেই আকাঙ্ক্ষিত মুহূর্ত। সেরা অভিনেতার অস্কার গ্রহণের পর লিওনার্দো জানালেন তাঁর অনুভূতি। ছবির সঙ্গে জড়িত সবাইকে ধন্যবাদ জানালেন। ধন্যবাদ জানালেন বাবা-মাকে, দর্শকদের। 

তবে শুধু ধন্যবাদ দিয়েই দায়িত্ব শেষ করেননি। বিশ্বের সবাইকে জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে একত্র হওয়ার আহ্বান জানালেন। বললেন, এখনই সময় প্রতিবাদ জানানোর, পৃথিবীকে বাঁচানোর।    

লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিওর অস্কার বক্তব্য : 

সবাইকে অনেক ধন্যবাদ। একাডেমিকে ধন্যবাদ, এই রুমে যাঁরা বসে আছেন, তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ। এ বছর দুর্দান্ত কাজ করে আমার সঙ্গে যাঁরা মনোনয়ন পেয়েছিলেন, তাঁদের সবাইকে অভিনন্দন। ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছিল অবিশ্বাস্য একদল অভিনেতা ও কলাকুশলীর অক্লান্ত পরিশ্রমে তৈরি পণ্য। সবার আগে আমার ভাই মিস্টার টম হার্ডির চেষ্টার কথা বলব। টম, পর্দায় তোমার অভিনয়কে ছাড়িয়ে যাওয়ার ক্ষমতা বাস্তবে একমাত্র তোমার বন্ধুত্বের রয়েছে। আমার জীবনের সেরা সিনেমা অভিজ্ঞতা তৈরি করার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ। 

আলেহান্দ্রো ইনারিতুকে ধন্যবাদ। দুই বছর ধরে সিনেমার ইতিহাসে অনাবিষ্কৃত যা ছিল, আপনি সেটা খুঁজে পাওয়ার জন্য অমানুষিক পরিশ্রম করেছেন। আপনার মেধা অবিশ্বাস্য। আপনাকে এবং চিভোকে (ইমানুয়েল লুবেজকি) ধন্যবাদ, আমাদের সবার সামনে নতুন দিনের সিনেমা অভিজ্ঞতা তৈরির জন্য।  

ফক্স এবং নিউ রিজেন্সির সবাইকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে ধন্যবাদ আরনোন মিলশানকে আমাদের কাজে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য। আমার পুরো দলকে ধন্যবাদ। আমার ক্যারিয়ারের শুরু থেকে যাঁরা ছিলেন, সবাইকে আমার ধন্যবাদ দিতে হবে। মিস্টার কিটন জোন্স, আমাকে প্রথম ছবিতে কাজ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য। মিস্টার স্করসেসি, আমাকে সিনেমার শিল্প আকৃতি সম্পর্কে অনেক কিছু শেখানোর জন্য। মিস্টার রিকি অর্ন, আমাকে এই শিল্পে সঠিক পথ দেখানোর জন্য। আমার বাবা-মাকে ধন্যবাদ, তাঁদের ছাড়া এর কিছুই সম্ভব হতো না। এবং আমাদের বন্ধুদের ধন্যবাদ, আমি সবাইকে ভালোবাসি এবং তোরা জানিস, তোরা আমার কী। 

এবং সবশেষে আমি শুধু বলতে চাই, ‘দ্য রেভেন্যান্ট’ ছিল বিশ্বের প্রকৃতির সঙ্গে একজন মানুষের সম্পর্ক নিয়ে। ২০১৫ সালে যে বিশ্বকে আমরা সবাই অনুভব করেছি, সেটা ছিল পৃথিবীর ইতিহাসে উষ্ণতম বছর। আমাদের প্রোডাকশন টিমকে দক্ষিণ মেরুতে যেতে হয়েছে তুষার খোঁজার জন্য। জলবায়ু পরিবর্তন বাস্তবতা, এখনই জলবায়ু পরিবর্তিত হচ্ছে। 

মানব সম্প্রদায় ও পৃথিবীর জন্য এটাই এখন সবচেয়ে বড় হুমকি এবং এটা থামাতে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে, আর আলসেমি করা ঠিক হবে না। বিশ্বজুড়ে সেসব নেতাকে আমাদের সমর্থন দিতে হবে, যাঁরা বড় বড় দূষণকারীর অথবা বড় বড় করপোরেশনের পক্ষে নন, বরং মানবতার পক্ষে কথা বলছেন। 

বিশ্বের আদিবাসী মানুষের জন্য, কোটি কোটি সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য আমাদের কথা বলতে হবে, যাঁরা জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।  আমাদের সন্তানদের সন্তানের জন্য, তাদের জন্য আমাদের কথা বলতে হবে। লোভের রাজনীতির কারণে যাদের প্রতিবাদ ডুবে গেছে, তাদের জন্য।

আজকে রাতে এই চমৎকার পুরস্কারের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমাদের বিশ্বকে আমরা ছেড়ে দিতে পারি না। আজকের রাতটা আমি চলে যেতে দিতে পারি না। সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Advertisement
0.77647995948792