Beta

আজ দিতির প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

২০ মার্চ ২০১৭, ১৩:৫৭

আজ জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পারভিন আকতার দিতির প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে আজ বাদ আসর তাঁর স্মরণে এক মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। দিতির মতো শিল্পীর প্রতি সম্মান জানানোর জন্যই এমন আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সহসভাপতি ওমর সানি।

এনটিভি অনলাইনকে ওমর সানি বলেন, ‘তিনি অনেক গুণী অভিনেত্রী। তিনি আজ থেকে এক বছর আগে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। আমরা তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা করি। আজ বাদ মাগরিব চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির স্টাডিরুমে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছি। আপনারা দোয়া করবেন, তাঁকে যেন আল্লাহ বেহেস্ত নসিব করেন।’

দীর্ঘ তিন মাস ক্যানসারের চিকিৎসার পর ভারতের মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব অর্থোপেডিকস অ্যান্ড ট্রমাটোলজি (এমআইওটি) হাসপাতাল থেকে ২০১৫ সালের ৮ জানুয়ারি অসুস্থতা নিয়েই দেশে ফিরেছিলেন অভিনেত্রী দিতি। ওই দিনই তাঁকে ভর্তি করানো হয় গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে। আজকের এই দিনে তিনি এই হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

পারভীন সুলতানা দিতি  জন্মগ্রহণ করেন ১৯৬৫ সালের ৩১ মার্চ, নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁওয়ে। ১৯৮৪ সালে নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে দেশীয় চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত হন দিতি। তাঁর অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র উদয়ন চৌধুরী পরিচালিত ‘ডাক দিয়ে যাই’, কিন্তু ছবিটি শেষ পর্যন্ত মুক্তি পায়নি। দিতির মুক্তিপ্রাপ্ত প্রথম চলচ্চিত্র ছিল ‘আমিই ওস্তাদ’। ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন আজমল হুদা মিঠু। এরপর দিতি দুই শতাধিক ছবিতে কাজ করেছেন। সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘স্বামী স্ত্রী’ ছবিতে অভিনয় করে তিনি প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দিতি ছোটপর্দার কিছু একক ও ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেছেন। এ ছাড়া তিনি রান্নাবিষয়ক অনুষ্ঠানও উপস্থাপনা করেছেন।

হীরামতি, দুই জীবন, ভাই বন্ধু, উছিলা, লেডি ইন্সপেক্টর, খুনের বদলা, আজকের হাঙ্গামা প্রভৃতি দিতির উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র।

Advertisement
0.7956759929657