Beta

ঢাবিতে ডিন নিয়োগে আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ

২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২৩:১০

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে নতুন ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগের সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন পরিপন্থী বলে অভিযোগ উঠেছে।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের নতুন ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগের সিদ্ধান্ত ’৭৩-এর অধ্যাদেশ লঙ্ঘন করা হয়েছে বলে মনে করেন অনুষদটির বর্তমান ডিন অধ্যাপক ড. এ জে এম শফিউল আলম ভূঁইয়া।

আজ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শফিউল আলম ভূঁইয়া এ কথা জানিয়েছেন। ডিন নিয়োগের এই সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন, ঐতিহ্য ও রেওয়াজ পরিপন্থী বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ঢাবির ১৯৭৩-এর ১৭ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী চলতি বছরের ২ জুলাই সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় শফিউল আলম ভূঁইয়াকে। সে অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে তাঁর মেয়াদ শেষ হবে ৯০ দিন পর অর্থাৎ আগামী ১ অক্টোবর।

শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, ‘নতুন ডিন নিযুক্ত করতে হলে নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে করাটাই আইনসিদ্ধ। কিন্তু তা না করে গত বুধবার সিন্ডিকেট সভায় অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিমকে ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। যেটি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন, ঐতিহ্য ও রেওয়াজ পরিপন্থী।’

ডিন পরিবর্তনের বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘কোনো কারণে ডিনের পদ শূন্য হলে উপাচার্য ৯০ দিন অথবা নির্বাচনের মাধ্যমে দিয়ে দেন। কিন্তু ভারপ্রাপ্তের মেয়াদ শেষ হলে সেটা আর উপাচার্য লাগে না, সেটা সিন্ডিকেট দিয়ে দেয়।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement