Beta

মেহেরপুরে আইনজীবীর চেম্বার থেকে ককটেল উদ্ধার

১১ জুলাই ২০১৬, ১৩:১৫

আইনজীবীর চেম্বারের সিঁড়িঘর থেকে ককটেল উদ্ধার করে পুলিশ। ছবি : এনটিভি

মেহেরপুর এক আইনজীবীর চেম্বারের সিঁড়িঘর থেকে তিনটি ককটেল এবং পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল) লেখা শতাধিক প্রচারপত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার সকাল ৯টায় মেহেরপুর সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল এগুলো উদ্ধার করে।

উদ্ধার করা প্রচারপত্রে লেখা রয়েছে, ‘জনগণের ঘৃণিত শত্রু নজরুল খতম প্রসঙ্গে পার্টির বীর গেরিলা, শুভানুধ্যায়ী ও বিপ্লবী জনগণের প্রতি আমাদের আহ্বান।’ দুই পাতার এ প্রচারপত্রে চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গা উপজেলা বন তিত্তরাবিলের নজরুলকে খুন করার কথা স্বীকার করা হয়েছে। এ ছাড়া গত ২১ এপ্রিল পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল লাল-পতাকা) এবং পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল-জনযুদ্ধ) নামের সংগঠন দুটিকে বিলুপ্ত করে পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল) নামে পার্টি গঠনের কথাও বলা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মেহেরপুর আইনজীবী সমিতির ভবন, যা নিমতলা ভবন নামে পরিচিত, এর পাশের ভবনের সিঁড়ি ঘরে লাল টেপ মোড়ানো তিনটি ককটেল ও কাগজপত্র দেখতে পেয়ে পুলিশ খবর দেয় প্রত্যক্ষদর্শীরা। পরে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে ককটেল ও শতাধিক প্রচারপত্র উদ্ধার করে।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ভবনটির দ্বিতীয় তলায় আওয়ামী লীগ নেতা আইনজীবী ইয়ারুল ইসলামের চেম্বার ও একটি নোটারি পাবলিকের অফিস রয়েছে।

এ বিষয়ে আইনজীবী ইয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘আমি শুনেছি আমার চেম্বার ভবনের সিঁড়ির নিচ থেকে ককটেল ও চরমপন্থী সংগঠনের প্রচারপত্র পুলিশ উদ্ধার করেছে। তবে কারা কী কারণে রেখেছে তা বুঝতে পারছি না। পুলিশ তদন্ত করলে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে।’

এ ব্যাপারে এসআই রবিউল ইসলাম বলেন, শহরে আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য কেউ এগুলো রেখে যেতে পারে। তবে পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল) কাজ কি না সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Advertisement