Beta

খালেকদাদ চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কার পেলেন দুজন

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২১:৫০

কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামের হাতে আজ মঙ্গলবার রাতে খালেকদাদ চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কার ২০১৮ তুলে দেওয়া হয়। ছবি : এনটিভি

বসন্ত বন্দনা, বসন্ত বরণ, আনন্দ শোভাযাত্রা, শিশুদের মুক্ত চিত্রাঙ্কন, তবলা লহড়ী, নৃত্য, স্বরচিত কবিতা ও গল্প পাঠ, আলোচনাসহ নানা কর্মসূচিতে নেত্রকোনায় উদযাপিত হয়েছে বসন্তকালীন সাহিত্য উৎসব।

আজ মঙ্গলবার (পহেলা ফাল্গুন) দিনব্যাপী অনুষ্ঠান শেষে রাত ৮টার দিকে ২২তম বসন্তকালীন সাহিত্য উৎসব ও খালেকদাদ চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কার ২০১৮ তুলে দেওয়া হয়। সাহিত্যে পুরস্কার পান কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম। কবিতায় অধ্যাপক কবি খালেদ মতিন (মরণোত্তর)।

জেলা শহরের মোক্তারপাড়ায় পাবলিক লাইব্রেরি চত্বরে বকুলতলায় ২২তম ‘বসন্তকালীন সাহিত্য উৎসব ও খালেকদাদ চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কার’ প্রদান নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। দিনব্যাপী অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন নেত্রকোনা সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আবুল কালাম আজাদ।

নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সভাপতি অধ্যাপক কামরুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচক হিসেবে ছিলেন বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক যতীন সরকার, কথা সাহিত্যিক হরিশঙ্কর জলদাস, কথা সাহিত্যিক মশিউর আলম, কবি আতাউল করিম প্রমুখ।

নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সভাপতি অধ্যাপক কামরুজ্জামান চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, শিক্ষাবিদ প্রাবন্ধিক অধ্যাপক যতীন সরকার, নাট্যকার ড. হুমায়ূন আহমেদ, কবি রফিক আজাদ, বিজ্ঞানী ও লেখক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, কবি নির্মলেন্দু গুণ, কবি মহাদেব সাহা, অধ্যাপক প্রবীর চৌধুরী, কবি হেলাল হাফিজ, কথা সাহিত্যিক রাবেয়া খাতুন, সেলিনা হোসেন, নাসরিন জাহান, আলতাফ হোসেন, সাংবাদিক রাহাত খান, কবি আবু হাসান শাহরিয়ার, কবি মো. রফিক ও কবি আসাদ চৌধুরীসহ গুণীজনরা এর আগে বিভিন্ন সময়ে খালকদাদ চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কারে পুরস্কৃত হয়েছেন।

নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সভাপতি অধ্যাপক কামরুজ্জামান চৌধুরী আরো বলেন, পহেলা ফাল্গুন বসন্তকালীন সাহিত্য উৎসব নেত্রকোনাবাসীর প্রাণের উৎসব। এ দিনে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে কবি, ছড়াকার, লেখক, সাহিত্যিকরা এ উৎসবে অংশগ্রহণ করেন। প্রতি বছর উৎসবে কবি-সাহিত্যিক ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়।

নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল্লাহ এমরান বলেন, বিগত ১৯৯৭ সাল থেকে প্রতি বছর নেত্রকোনা সাহিত্য সমাজ দেশ বরেণ্য লেখক, কবি, সাহিত্যিকদের এ পুরস্কার দিয়ে আসছে। এ বছর মরহুম খালেকদাদ চৌধুরী একুশে পদকে ঘোষিত হওয়ায় অনুষ্ঠানে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে।

Advertisement
1.0150949954987