Beta

দেশ ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা আখেরি মোনাজাতে

১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১১:২৩ | আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশ ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় টঙ্গীর তুরাগ তীরের বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে লাখ লাখ মুসল্লি দুই হাত তুলে আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ জানিয়েছেন। এ সময় তাঁরা চোখের জলে জাহানের সব মানুষের জন্য মঙ্গল কামনা করেন।    

আজ রোববার বেলা পৌনে ১১টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। ইজতেমা ময়দানে বিদেশি নিবাসের পূর্বপাশে বিশেষভাবে স্থাপিত মঞ্চ থেকে এ মোনাজাত পরিচালনা করা হয়। এর আগে অনুষ্ঠিত হয় হেদায়েতি বয়ান।

ভারতের মাওলানা সাদ কয়েক বছর ধরে ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করলেও এবার তাঁর পরিবর্তে বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের ইমাম হজরত মাওলানা যোবায়ের হাসান আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ইজতেমার মূল মঞ্চ থেকে আশপাশের সব জায়গা মুসল্লিদের আগমনে পরিপূর্ণ হয়ে উঠে। মানুষ অবস্থান নেয় রাজপথসহ আশপাশের বাসাবাড়ির ছাদে।

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো এবারের ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব।

এরপর চারদিন বিরতি দিয়ে আগামী শুক্রবার শুরু হবে তিনদিনের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। আখেরি মোনাজাতে মুসল্লিদের আসা ও যাওয়া নিরাপদ করতে শনিবার দিবাগত রাত থেকে মোনাজাত অনুষ্ঠান পর্যন্ত ইজতেমা ময়দানগামী সড়কে যানবাহন চলাচলে বিধি-নিষেধ আরোপ করে পুলিশ।

বিশ্ব ইজতেমা আগামী বছর শুরু হবে ১১ জানুয়ারি

আগামী বছর বিশ্ব ইজতেমা ১১ জানুয়ারি থেকে অনুষ্ঠিত হবে। শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদে তাবলিগ মুরুব্বিদের এক পরামর্শ সভায় ওই তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বিদের সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী বছর বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১১, ১২ ও ১৩ জানুয়ারি এবং চারদিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব ১৮, ১৯ ও ২০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

Advertisement