Beta

‘বিচারকরা জঙ্গিদের জামিন দিলে কষ্ট পাই’

১৪ নভেম্বর ২০১৭, ২২:১৯ | আপডেট: ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ২২:২৪

‘জঙ্গিদের জামিনের বিষয়ে আমরা বিচারকরা অনেক কঠোর। বাংলাদেশ জঙ্গি মুক্ত দেশ হবে আমরা আশাবাদী। তবে অনেক ক্ষেত্রে অনেক বিচারক জঙ্গিদের জামিন দেন, যাতে আমরা কষ্ট পাই।’

আজ মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালত ভবনের চতুর্থ তলায় সোহেল-জগন্নাথ স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় এসব কথা বলেন ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান। তিনি জঙ্গিদের জামিনের বিষয়ে কঠোর হতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান জানান।

জঙ্গি হামলায় নিহত বিচারক জগন্নাথ পাঁড়ে ও সোহেল আহম্মেদ স্মরণে বাংলাদেশ জুডিশিয়াল সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন, ঢাকা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে আইন ও বিচার বিভাগের যুগ্ম সচিব বিকাশ কুমার সাহা বলেন, ‘জঙ্গিবাদকে প্রতিহিত করতে হবে। বিচার বিভাগকে আঘাত করার জন্য জঙ্গিবাদের উত্থান হয়। এমনকি প্রধানমন্ত্রীকেও হত্যা করতে চেয়েছিল, যা আমরা বিচার করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা সমাজের অনেক বড় ব্যক্তিকে দেখলে সম্মান করি, কিন্তু তারাও জঙ্গিবাদের সাথে নিয়োজিত।’ তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর (শেখ হাসিনা) হত্যাচেষ্টা মামলার বিচারও বিলম্বিত করা হয়েছিল। সে বিচারকদের আমরা চিনি। কিন্তু বর্তমানে সে মামলার খুব দ্রুত বিচার সম্পন্ন হয়েছে।’

অনুষ্ঠানে সাম্প্রতিক রংপুরের ঠাকুরবাড়িতে হিন্দুদের বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার বিষয়ে নিন্দা জানান ঢাকা জেলা জজ এস এম কুদ্দুস জামান। তিনি বলেন, ‘প্রকৃত মুসলিমরা কখনো এমন ঘটনা ঘটাতে পারে না। সঠিক হাদিস না জেনে এমন ধরনের অসহিষ্ণু কাণ্ড ঘটাচ্ছে। এতে আমাদের দেশের বদনাম হচ্ছে।’

বিচারক এস এম কুদ্দুস জামান আরো বলেন, ‘জঙ্গি ও এসব কার্যক্রম (রংপুরে হিন্দু বাড়িতে হামলা, অগ্নিসংযোগ) একই সূত্রে গাথা। দেশকে সিরিয়া, ইন্দোনেশিয়া ও আফগানিস্তান বানানোর পাঁয়তারা করছে কিছু ব্যক্তি যা কখনো হতে দেওয়া যাবে না।’

প্রসঙ্গত, ২০০৫ সালের ১৪ নভেম্বর সারা দেশে সিরিজ বোমা হামলার সময় ঝালকাঠি জেলা জজ আদালতের বিচারক জগন্নাথ পাঁড়ে ও সোহেল আহম্মেদ নিহত হন। সে ঘটনায় আজ স্মরণ সভা ও শোক দিবস পালিত হয়।

অনুষ্ঠানে ঢাকার জেলা জজ এস এম কুদ্দুস জামান, আইন বিচার বিভাগের যুগ্ম সচিব বিকাশ কুমার সাহা, মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা, বিভাগীয় স্পেশাল জজ এম আতোয়ার রহমান, হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার গোলাম রব্বানী, আই্ন বিচার বিভাগের উপ-সচিব প্রশসন মাহবুবার রহমান, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আরা, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান, যুগ্ম ও জেলা জজ সাউদ হাসান, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার ও সিনিয়র সহকারী জজ রাজেশ চৌধুরীসহ শতাধিক বিচারক।

Advertisement
1.4640111923218