Beta

রোহিঙ্গাদের জঙ্গিবাদের দিকে টেনে নেওয়ার আশঙ্কা বিশিষ্টজনদের

১২ অক্টোবর ২০১৭, ১৯:০১ | আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০১৭, ১৯:০৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে সুজন আয়োজিত আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্টজনরা। ছবি : এনটিভি

রোহিঙ্গাদের জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে না পারলে খুব সহজেই তাদের জঙ্গিবাদের দিকে টেনে নেবে জঙ্গি সংগঠনগুলো, যা দেশের জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াবে।

রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে সুশাসনের জন্য নাগরিক- সুজন আয়োজিত আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা আরো বলন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক চাপ বাড়াতে না পারলে এ সমস্যা আরো ঘনীভূত হবে।

বক্তারা মনে করেন, রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশ সরকারের কোনো হোমওয়ার্ক ছিল না। মিয়ানমারে অবস্থান করা বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আগে থেকেই দেশটির মনোভাব বুঝতে পারেনি, যা ব্যর্থতার প্রমাণ করে।

আলোচনায় সাবেক রাষ্ট্রদূত মুন্সি ফয়েজ বলেন, ‘এটা সারা মানবতার, সারা পৃথিবীর সমস্যা। এটার ব্যর্থতা যদি থাকে, শুধু বাংলাদেশের ব্যর্থতা নয়। এটা সারা পৃথিবীর মানবতার ব্যর্থতা।’

এ সময় লেখক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, ‘এটা শুধু রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র নয়, এটা বাংলাদেশের বিরুদ্ধেও ষড়যন্ত্র।’

অনুষ্ঠানে সাবেক কূটনীতিক আবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘যত দিন এই সমস্যা থাকবে, তত দিন নতুন পরিপ্রেক্ষিত বাড়বে।’

আলোচনায় সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে অতি সহজেই জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদের দিকে প্ররোচিত করা যাবে। এর মধ্য দিয়ে অস্থিতিশীলতা তৈরি করতে পারে।’

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে সরকারের ভূমিকা নিয়ে দেশের মানুষ পুরোপুরি অবগত নয় জানিয়ে বক্তারা বলেন, রোহিঙ্গাদের দীর্ঘ মেয়াদে বাংলাদেশে রাখার পরিকল্পনা না করে যতদ্রুত সম্ভব তাদের ফেরত পাঠাতে কূটনৈতিক আলোচনা অব্যাহত থাকা দরকার।

Advertisement
3.5155851840973