Beta

কক্সবাজারে নৌকাডুবি : আরো ১৬ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

১০ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:৪৮ | আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৭, ২২:৫২

মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসার পথে কক্সবাজারের শাহপরীর দ্বীপ এলাকায় গত রোববার রোহিঙ্গাবোঝাই নৌকাডুবির ঘটনায় আজ মঙ্গলবার আরো ১৬ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার হয়েছে। এ নিয়ে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো।

উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে ১৯ শিশু, ১০ নারী ও এক পুরুষ রয়েছে। এ পর্যন্ত জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ১৭ জনকে।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা জানান, এখনো কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে বলে ধারণা করছেন তাঁরা। নিহত সবার দাফন স্থানীয়ভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর নতুন করে রাষ্ট্রীয় সহিংসতা শুরুর হলে জীবন বাঁচাতে তারা বাংলাদেশে আসতে থাকে। মিয়ানমার-বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী নাফ নদে ঝুঁকি নিয়ে ট্রলার, নৌকায় করে পারাপার হতে গিয়ে নৌযান ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। গত ২৫ আগস্ট থেকে ৮ অক্টোবর পর্যন্ত অন্তত ৩০টি নৌযান ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই শতাধিক রোহিঙ্গা মারা গেছে।

সাত লাশ উদ্ধার সম্পর্কে টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাইনুদ্দিন জানান, টেকনাফের বিভিন্ন স্থান থেকে এই ১৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা জানান, মংডুর নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকা থেকে নারী-পুরুষ-শিশুর প্রায় ৩৫/৪০ জনের একটি দল নৌকায় করে গত রোববার রাতে শাহপরীর দ্বীপ এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছিল। বৈরী আবহাওয়ায় উত্তাল সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে তাদের নৌকা নাফ নদের ঘোলার চর পয়েন্টে দুর্ঘটনার শিকার হয়।

ঘটনার পরপরই উদ্ধার অভিযান শুরু করে পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও শাহপরী স্টেশন কোস্টগার্ড।

Advertisement
0.79846501350403