Beta

লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন

সাংবাদিককে ডেকে নিয়ে মারধর ও মামলার প্রতিবাদ

৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৫:০৮

লক্ষ্মীপুর সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে জেলা প্রেসক্লাবের সামনে আজ মানববন্ধন করেন স্থানীয় সাংবাদিকরা। ছবি : এনটিভি

লক্ষ্মীপুরে রফিকুল ইসলাম নামের সাংবাদিককে ডেকে নিয়ে মারধর ও সাংবাদিক ইসমাঈল হোসেন জবুর বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুর ১২টার দিকে লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালন করেন স্থানীয় সংবাদকর্মীরা।

রফিকুল ইসলাম স্থানীয় দৈনিক লক্ষ্মীপুর কণ্ঠের সম্পাদক এবং ইসমাঈল হোসেন জাতীয় দৈনিক খবর পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের জেলা প্রতিনিধি মো. কাউছার, প্রথম আলোর প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর আলম, সময় টিভির মাহবুবুর রহমান ও ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের আব্বাছ হোসেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রফিকুলকে ডেকে নিয়ে মারধরের সুষ্ঠু বিচার করতে হবে। একই সঙ্গে ইসমাঈলের বিরুদ্ধে করা মামলা তুলে নিতে হবে। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত সাংবাদিকদের কর্মসূচি চলবে।

কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সাইফুল ইসলাম স্বপন, জিটিভি অনলাইনের রুবেল হোসেন, দৈনিক আলোকিত সময়ের জামাল উদ্দিন বাবলু, খোলা কাগজের জামাল উদ্দিন রাফি, বণিক বার্তার রাকিব হোসাইন রনি ও শীর্ষ সংবাদ অনলাইনের সম্পাদক নজরুল ইসলাম জয়।

আহত সাংবাদিক ও স্থানীয়রা জানায়, উত্তর জয়পুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেমের বিভিন্ন প্রকল্পের অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয় উল্লেখ করে দৈনিক লক্ষ্মীপুর কণ্ঠ ও জাতীয় পত্রিকায় একাধিক সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর জের ধরে গতকাল শুক্রবার দুপুরে আবুল কাশেম ফোন করে তাঁর বাড়িতে রফিকুলকে ডেকে নেন। সংবাদ প্রকাশ নিয়ে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে চেয়ারম্যান ও তাঁর অনুসারীরা তাঁকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তাঁকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সম্প্রতি সদর উপজেলায় জমি নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে স্থানীয়দের মধ্যে মারধরের ছবি তুলে পত্রিকায় প্রকাশ করেন ইসমাঈল হোসেন। এর জের ধরে তাঁর বিরুদ্ধে একটি মানহানির মামলা করেন সদর উপজেলার আটিয়াতলি গ্রামের মহিউদ্দিন সুমন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement