Beta

নববধূর সামনেই তলিয়ে গেলেন স্বামী

১২ আগস্ট ২০১৭, ২৩:০০

বিয়ের অনুষ্ঠানে হোসনে আরা হাসি ও রুবায়েত ইমরান। ছবি : ফেসবুক

চলতি বছরই বিয়ে করেছিলেন হোসনে আরা হাসি ও রুবায়েত ইমরান।  নববধূকে নিয়ে কুমিল্লা শহরে গিয়েছিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা রুবায়েত। তবে এটাই যে তাঁর শেষ যাওয়া হবে তা হয়তো ভাবতে পারেননি তিনি।

আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে কুমিল্লার ধর্মসাগরে গোসল করতে নামেন রুবায়েত। দিঘির পাড়েই দাঁড়িয়ে ছিলেন স্ত্রী হোসনে আরা হাসি।  গোসলের একপর্যায়ে পানিতে তলিয়ে যেতে থাকেন রুবায়েত। স্থানীয় লোকজন পানিতে নেমেও বাঁচাতে পারেননি রুবায়েতকে। উদ্ধারের পর জীবিত অবস্থায় পাওয়া যায়নি তাঁকে।

রুবায়েত রাজধানীতে একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকরি করতেন। তিনি ঢাকার খিলগাঁওয়ের বাসিন্দা কুমিল্লার বিসিকের সাবেক পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমানের ছেলে।

রুবায়েতের স্ত্রী হোসনে আরা হাসি স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) একজন কর্মকর্তা। এর আগে আনসারের সহকারী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (অপারেশন) রাকিবুল হাসান জানান, হোসনে আরা হাসির কুমিল্লায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমিতে (বার্ড) একটি প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়ার কথা। এ কারণে স্বামী রুবায়েতকে নিয়ে গতকাল শুক্রবার কুমিল্লা যান তিনি।

রাকিবুল আরো জানান, শুক্রবার রাতে আনসারের নিজস্ব রেস্টহাউসে ছিলেন ওই দম্পতি। শনিবার দুপুর ১২টার দিকে আনসারের একটি গাড়িতে করে কুমিল্লা ধর্মসাগরে যান তাঁরা। সেখানে গিয়েই ঘটে ওই ঘটনা। রুবায়েতের চিৎকার শুনে পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। কিন্তু ততক্ষণে না ফেরার দেশে চলে গেছেন রুবায়েত।

উদ্ধারের পর রুবায়েতকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে সন্ধ্যায় তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য  কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

Advertisement
0.95871210098267