Beta

সাংবাদিক শিমুল হত্যা : মীরুকে মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত

১৯ জুন ২০১৭, ১৮:৩১ | আপডেট: ১৯ জুন ২০১৭, ১৮:৩৩

হালিমুল হক মীরু।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলায় পৌর মেয়র হালিমুল হক মীরুকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। একই অভিযোগে পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাককেও সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

আজ সোমবার বিকেলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আব্দুর রউফ মিয়া স্বাক্ষরিত চিঠির মাধ্যমে দুজনকে এ বহিষ্কারাদেশ দেওয়া হয়।

সিরাজগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক আবু নূর মোহাম্মদ শামছুজ্জামান বিকেল ৪টার দিকে বলেন, ‘দুপুর ২টার দিকে আমরা বহিষ্কারের চিঠি হাতে পেয়েছি।’

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলায় মেয়র মীরু ও কাউন্সিলর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র গৃহীত হওয়ায় স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন ২০০৯-এ ৩১-এর ১ ধারা মোতাবেক তাঁদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুর পৌর মেয়র মীরু ও তার দুই ভাইয়ের সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাংশের সংঘর্ষ হয়। এ সময় পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মীরু ও তার ভাইয়ের শটগানের গুলিতে দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আবদুল হাকিম শিমুল মাথায় গুলিবিদ্ধ হন। আহত অবস্থায় উদ্ধারের পর বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল থেকে পরদিন ঢাকায় নেওয়ায় পথে দুপুরে মারা যান শিমুল।

এ ঘটনায় শিমুলের স্ত্রী নুরুন্নাহার বেগম বাদী হয়ে মেয়র মীরু ও তাঁর ভাই মিন্টুসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরো ২৫ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত শেষে গত ২ মে বিকেলে মেয়র মীরুসহ ৩৮ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ। ১৩ জুন শুনানি শেষে অভিযোগপত্র গ্রহণ করে নথিভুক্ত করেন শাহজাদপুর আমলি আদালত।

এ ঘটনার কয়েকদিন পরই জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে বহিষ্কৃত হন মীরু।

Advertisement
Advertisement