Beta

রমজান সামনে রেখে ভোক্তা অধিদপ্তরের নজরদারি

১৯ মে ২০১৭, ২১:০৬

নিজস্ব প্রতিবেদক
পুরোনো ছবি

পবিত্র রমজান মাস সামনে রেখে রাজধানীসহ সারা দেশে পণ্যের মান, পণ্য তৈরির পরিবেশ যাচাই ও মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে বাজারে বিশেষ মনিটরিং করছে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

ভোক্তা অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, সাধারণত রাজধানীতে প্রতিদিন একটি করে ভ্রাম্যমাণ আদালত বাজার মনিটরিং করার জন্য বের হন। কিন্তু রমজান উপলক্ষে প্রতিবছরের মতো এবারও বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে আরো অতিরিক্ত একটি অর্থাৎ প্রতিদিন দুটি করে ভ্রাম্যমাণ আদালত বের হচ্ছেন।

এ ছাড়া দেশের প্রতিটি বিভাগীয় ও জেলা শহরসহ উপজেলা পর্যায়ে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে।

জানা যায়, গত ১৭ মে থেকে বাজার মনিটরিং-এর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। চলবে শেষ রোজা পর্যন্ত। এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পণ্যের মান যাচাই করে থাকে। দোকানে পণ্যের মূল্য তালিকা লাগানো আছে কি না, তা দেখাসহ কোনো পণ্যের গায়ের মূল্যের চেয়ে ভোক্তাদের কাছ থেকে বেশি মূল্য নেওয়া হচ্ছে কি না তা পর্যবেক্ষণ করে থাকে।

রমজান মাসে রাজধানীতে হোটেল ও রেস্টুরেন্টগুলো ইফতারি তৈরি ও পরিবেশনের বিষয়ে বিশেষ নজরদারি রাখা হয় বলে জানা গেছে।

জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর ঢাকা বিভাগের উপপরিচালক মো. আবদুল মজিদ এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘রমজানে ব্যবসায়ীরা যাতে ভোক্তাদের প্রতারিত করতে না পারে, সে বিষয়ে আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করে থাকি।’

আবদুল মজিদ বলেন, ‘আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। আমাদের লোকবল কম থাকায় ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বেশি টিম পাঠাতে পারি না।’ তিনি বলেন, এবারে রমজান উপলক্ষে গত ১৭ মে থেকে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এ কার্যক্রম চলবে শেষ রমজান পর্যন্ত।

মজিদ বলেন, ‘আমাদের সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। আমরা যদি প্রত্যেকে প্রত্যেকের জায়গা থেকে সচেতন হই, তাহলে অনিয়ম দূর হবে। অন্যথায় আমাদের একার পক্ষে এটা দূর করা সম্ভব নয়।’

Advertisement
Advertisement