Beta

পুলিশকে অসহযোগিতার মামলায় তাহমিদের রায় ৬ এপ্রিল

২০ মার্চ ২০১৭, ১৮:৩৩

আদালত প্রতিবেদক
ঢাকার আদালতে কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাহমিদ হাসিব খান। পুরোনো ছবি

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় বেঁচে যাওয়া তাহমিদ হাসিব খানের বিরুদ্ধে পুলিশকে অসহযোগিতা করার মামলায় রায়ের জন্য আগামী ৬ এপ্রিল দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম মাহমুদুল হাসান এ মামলার যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আদালতে তাহমিদের আইনজীবী যুক্তিতর্ক শুনানিতে অংশ নেন। তাহমিদ শুনানির সময় আদালতে হাজির ছিলেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, গত বছরের ৩ আগস্ট হলি আর্টিজানে হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে ৫৪ ধারায় কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তাহমিদকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁকে ৫৪ ধারা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এর পরই তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশকে অসহযোগিতা করার অভিযোগ আনা হয়।

১০ জানুয়ারি ঢাকার মহানগর হাকিম মাহমুদুল হাসান এ মামলায় তাহমিদের বিচার শুরুর আদেশ দেন।

গত বছরের ৪ আগস্ট রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার জি-ব্লকের একটি বাসা থেকে রাত ৯টার দিকে তাহমিদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর তাঁকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ১ জুলাই রাত ৯টার দিকে হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় বন্দুকধারীরা। হামলার পর রাতেই তারা ২০ জনকে হত্যা করে। ওই দিন রাতে উদ্ধার অভিযানের সময় বন্দুকধারীদের বোমার আঘাতে নিহত হন পুলিশের দুই কর্মকর্তা। পরের দিন সকালে যৌথ বাহিনীর অভিযানে নিহত হয় পাঁচ হামলাকারী ও রেস্তোরাঁর এক কর্মী।

এ নিয়ে হামলার পর ২৮ জন নিহত হয়। জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করে। সংগঠনটির মুখপত্র আমাক হামলাকারীদের ছবি প্রকাশ করে বলে জানায় জঙ্গি তৎপরতা পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্স।

এ ঘটনায় এক ভারতীয় নাগরিকসহ নয় ব্যক্তি ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে বিভিন্ন সময়ে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক সাক্ষ্য দেন। অন্যদিকে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির সাবেক শিক্ষক হাসনাত করিম, কল্যাণপুরে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের সময় আটক রাকিবুল ইসলাম রিগ্যান ও রাজীব গান্ধীকে গুলশান হামলা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

Advertisement
Advertisement
0.92268395423889