Beta

নাশকতার পরিকল্পনায় ইবনে সিনার ২৬ কর্মী আটক

২০ মার্চ ২০১৭, ১৮:০৫ | আপডেট: ২০ মার্চ ২০১৭, ১৯:০৪

নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে গাজীপুর কালিয়াকৈর উপজেলার ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইবনে সিনা কারখানার একটি আবাসিক ভবনে অভিযান চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ২৬ কর্মীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

আজ সোমবার ভোর ৪টার দিকে উপজেলার সফিপুরে ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড কারখানার আবাসিক কোয়ার্টার থেকে তাঁদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে কারখানার ব্যবস্থাপক জাকারিয়া আহমেদ, তামিম ও ইসমাঈলসহ ১২ জন কর্মকর্তা রয়েছেন। অন্যরা প্রতিষ্ঠানটির নিরাপত্তাকর্মী বলে জানায় পুলিশ।

তবে ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের প্রশাসনিক কর্মকর্তা এমদাদুল হক দাবি করেন, ভোরে কারখানার ফটকে গিয়ে পুলিশ পরিচয়ে গেট খুলতে বলা হয়। গেট খুললে পুলিশের একটি ভ্যান ও তিনটি মাইক্রোবাস কারখানার ভেতরে প্রবেশ করে। পরে সাদা পোশাকধারীসহ প্রায় ৪০ জন ভেতরে যায়। তারা কারখানার নিরাপত্তাকর্মীদের মুঠোফোন নিয়ে নেয়। এ সময় তারা কারখানার সিসি ক্যামেরা ভাঙচুর ও টেলিফোনের তার ছিঁড়ে ফেলে।

ওই কর্মকর্তা আরো দাবি করেন, একপর্যায়ে কারখানায় কর্মরত পিয়ার আহমেদ, রমজান ফকির, আবদুল বাতেন, জয়নাল ফকির, জাহিদুল ইসলাম, দ্বীন ইসলামসহ ১৪ জন নিরাপত্তাকর্মীকে আটক করা হয়। পরে কারখানার ভেতরের আবাসিক কোয়ার্টারে অভিযান চালিয়ে ঘুম থেকে উঠিয়ে ব্যবস্থাপক জাকারিয়া, তামিম, ইসমাঈলসহ ১২ জন কর্মকর্তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমির হোসেন দাবি করেন, ইবনে সিনার ওই কোয়ার্টারে জামায়াত-শিবিরের কর্মীরা নাশকতার পরিকল্পনা করছেন- এমন তথ্য পেয়ে আজ ভোরে অভিযান চালানো হয়। পরে সেখান থেকে ওই ২৬ জনকে আটক করা হয়।

আটকদের নাশকতার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ওসি।

Advertisement
Advertisement