Beta

সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ আর নেই

০৫ জানুয়ারি ২০১৭, ১১:৩১

নিজস্ব প্রতিবেদক
সাবেক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়কমন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ। পুরোনো ছবি

যশোর-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, কূটনীতিক এবং সাবেক তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়কমন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল বুধবার রাত পৌনে ৮টার দিকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ৭৪ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

বেশ কিছুদিন ধরে তিনি বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। এনটিভি অনলাইনকে তাঁর মৃত্যুর খবরটি জানান প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন। তিনি স্ত্রী ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব বলেন, সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনাও জানিয়েছেন।

সাবেক এই রাষ্ট্রদূত ১৯৪২ সালের ২১ মার্চ যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবার নাম মরহুম সেকেন্দার মোহাম্মদ মোসলেম। মায়ের নাম মরহুমা আমেনা খাতুন। আট ভাইবোনের মধ্যে তৃতীয় এবং ভাইদের মধ্যে দ্বিতীয় ছিলেন মোস্তফা ফারুক।

১৯৬৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার মধ্য দিয়ে পেশাগত জীবন শুরু হয় তাঁর। ১৯৬৮ সালে জাপানে পাকিস্তান দূতাবাসে নিয়োগ পান। ১৯৭০ সালে পদোন্নতি পেয়ে হন দ্বিতীয় সচিব। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ ত্যাগ করে যোগ দেন মুক্তিযুদ্ধে।

১৯৮৬ সালে তিনি সার্কের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯০ সালে মিয়ানমারে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত পদে নিয়োগ পান।

১৯৯৩ সালে ভিয়েতনামে রাষ্ট্রদূত হিসেবে যোগ দেন মোস্তফা ফারুক। ১৯৯৬-৯৯ সাল পর্যন্ত রাশিয়ায় এবং ১৯৯৯-২০০১ সাল পর্যন্ত দিল্লিতে রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

২০০১ সালে চাকরি থেকে অবসরে যান তিনি। ২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যশোর-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। সর্বশেষ ২০১২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সরকারের বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান তিনি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement